'বেপরোয়া তরুণরাই করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধির জন্য দায়ী'

'বেপরোয়া তরুণরাই করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধির জন্য দায়ী'
আজ বাংলা: করোনায় জর্জরিত গোটা বিশ্ব। পাল্লা দিয়ে বাড়ছে মৃত্যু ও সংক্রমণের সংখ্যা। এহেন অবস্থায় নয়া তথ্য দিল হু বা বিশ্ব 1কলকাতা সংস্থা। হু-এর মহাপরিচালক মহাপরিচালক তেদ্রোস আধানমের বক্তব্য, 'তরুণরা 1কলকাতাবিধি না মেনে বেপরোয়াভাবে চলাফেরা করার কারণে বিশ্বের অনেকে দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি দেখা যাচ্ছে।' জেনেভায় করোনা নিয়ে ব্রিফিংয়ে এমন তথ্য জানিয়ে সকল দেশের তরুণদের 1কলকাতাবিধি মানার আহ্বান জানিয়েছেন হু-র প্রধান। তিনি এদিন জানান, 'তরুণরা অপ্রতিরোধ্য নয়। বয়স্ক কিংবা আগে থেকে নানান রোগে আক্রান্তদের মতো তরুণরাও সংক্রমিত হওয়ার সমান ঝুঁকিতে রয়েছেন।' এ প্রসঙ্গে তিনি আরও বলেন, 'নভেল করোনাভাইরাস নামক এই মহামারীর বিস্তার ঠেকাতে হলে এখন আমাদের জন্য সবচেয়ে বড় চ্যালেঞ্জ হলো তরুণদের এটা বোঝানো যে তারও অন্যদের মতো সমানভাবে প্রাণঘাতী এই ভাইরাসটিতে সংক্রমিত হওয়ার ঝুঁকিতে রয়েছেন। তা না হলে সংক্রমণের লাগাম টানা সম্ভব নয়।' কেননা, 'তাদের হাতে এ সংক্রান্ত প্রমাণ আছে যে, যেসব দেশে করোনাভাইরাস সংক্রমণের ঊর্ধ্বগতি দেখা যাচ্ছে, সেসব দেশে এটার নেপথ্যে রয়েছে তরুণরা। কারণ তারা করোনার সংক্রমণ রোধে যেসব সুরক্ষাব্যবস্থা গ্রহণ করা উচিত তা করছে না।' তাই তরুণদের প্রতি আহ্বান জানিয়ে তেদ্রোস আধানম বলেন, 'অন্যরা নিজেদের সুরক্ষিত রাখতে যেসব পদক্ষেপ নিচ্ছে তরুণদেরও অবশ্যই সেসব করতে হবে। কেননা তরুণরাও আক্রান্ত হতে পারে, তরুণরাও মারা যেতে পারে এবং তরুণরাও অন্যদের মধ্যে ভাইরাসটির সংক্রমণ ঘটাতে পারে।'