দিঘার মোহনায় উদ্ধার বিশাল আকৃতির চিলশঙ্কর মাছ

দিঘার মোহনায় উদ্ধার বিশাল আকৃতির চিলশঙ্কর মাছ
আজবাংলা    সপ্তাহের শুরুতেই হুড়োহুড়ি দিঘা মোহনা মৎস বন্দরে। করোনা আতঙ্ক উপেক্ষা করেই থিকথিকে ভিড় মাছ বাজারে। ভিড় সামলাতে রীতিমতো হিমশিম খেতে হল পুলিশ ও 11য়ীদের। কারণ এদিনই এক ট্রলার দিঘার মৎস বন্দরে ভিড়লে দেখা যায় ৭৮০ কেজি ওজনের এক চিল শংকর মাছ মৎসজীবীদের জালে উঠেছে। জানাজানি হতেই মাছটি দেখতে ভিড় জমান স্থানীয় বাসিন্দারা। মৎসজীবীদের দাবি, এই ধরণের দৈত্যাকায় মাছ সাধারণত জালে ওঠে না। তাই এই ধরণের মাছের দেখা পাওয়াও বিরল। ফলে সাধারণ মানুষ থেকে শুরু করে পর্যটকরা ভিড় জমিয়েছেন মাছটিকে দেখতে। দিঘায় এখন অল্প সংখ্যক হলেও পর্যটক রয়েছেন। তাঁরা এই মাছ দেখতে ভিড় করেন মোহনার কাছে। এলাকার লোকজনের সঙ্গেও তাঁরাও মাছটির ছবি তুলতে শুরু করেন। পরে মাছটিকে নবকুমার পয়ড়্যার কাঁটাতে বিক্রির জন্য পাঠানো হয়। সেখান থেকেই বিক্রি হয়। মার্চ মাসে দিঘার মৎস্যজীবীদের জালে বিশাল মাপের একটি শঙ্কর মাছ উঠেছিল। ওজন ছিল ৯০০ কিলো। মাছটি আবার একটি গাড়িতে ধরছিল না। সেই মাছটিকে দেখতেও বহু মানুষ ভিড় করেছিলেন। মাছটি কাঁথির এক মৎস্যজীবীর জালে ধরা পড়েছিল। মাছটি নিলামে বিক্রি হয়েছিল দিঘা মোহনার কালীপদ শ্যামলের কাঁটায়। কেউ কেউ আবার মোবাইল ক্যামেরায় মাছটির ছবি তুলে রাখলেন। জানা যাচ্ছে, ৭৮০ কেজির এই দৈত্যাকায় মাছটি নিলামে কিনে নেয় রানাঘাটের এক মাছ 11য়ী। ৩২ হাজার টাকায় মাছটি তিনি কেনেন। উল্লেখ্য, গত মার্চে ৯০০ কেজির একই প্রজাতির একটি চিল শংকর মাছ দিঘা মোহনা মাছ বাজারে বিক্রি হয়েছিল।